পুলিশের প্রতি আস্থা ফিরেছে মানুষের – প্রধানমন্ত্রী

0
450

পুলিশ বাহিনী জনগণের আস্থা-বিশ্বাস অর্জন করেছে উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন- পুলিশবাহিনী প্রতিটি ক্ষেত্রে তাদের দক্ষতা দিয়ে যাচ্ছে। জনগণের আস্থা বিশ্বাস পুলিশ অর্জন করতে পেরেছে। এই বাহিনীর উন্নয়নে আর্থিক বরাদ্দকে সরকার বিনিয়োগ হিসেবে দেখছে। রোববার (৫ জানুয়ারি) সকালে রাজারবাগ পুলিশ লাইন্সে পুলিশ সপ্তাহের উদ্বোধনীতে এ কথা বলেন তিনি। এ সময়, পুলিশকে জনবান্ধব বাহিনী হিসেবে সেবা দেয়ার আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী। আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে বাহিনীটির ভূমিকার প্রশংসাও করেন সরকার প্রধান। পুলিশ সপ্তাহ-২০২০ উপলক্ষে রোববার সকালে রাজধানীর রাজারবাগ পুলিশ লাইন্সে আসেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বাহিনী প্রধানকে সঙ্গে নিয়ে প্যারেড কারে তিনি পরিদর্শন করেন বাহিনীর বিভিন্ন বিভাগের সুসজ্জিত দল। পুলিশ সপ্তাহের আনুষ্ঠানিকতায় বাহিনীর বিভিন্ন কন্টিনজেন্টের সমন্বিত কুচকাওয়াজ থেকে সালাম জানানো হয় প্রধানমন্ত্রীকে। পরে, পুলিশ সপ্তাহের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন তিনি। প্রধানমন্ত্রী বলেন, সেবার মাধ্যমে পুলিশের প্রতি আস্থা ফিরেছে মানুষের। লক্ষ্য এখন আরো জনবান্ধব হওয়ার। তিনি বলেন, এই সরকার দৃঢ়ভাবে প্রতিজ্ঞ বাংলাদেশ থেকে সন্ত্রাস, মাদক, জঙ্গীবাদ দূর করার এবং সে অনুযায়ী আমরা কাজ করে যাচ্ছি। ৯৯৯ এ কল করেই মানুষ এখন পুলিশের সেবা পাচ্ছে। তিনি বলেন, জঙ্গিবাদ, সোশ্যাল মিডিয়ায় গুজব প্রতিরোধে দক্ষতা দেখিয়েছে এই পুলিশ। আগামীর বাংলাদেশের জন্য আরো আধুনিক করে গড়ে তোলার উদ্যোগ নেয়া হয়েছে এই বাহিনীকে। প্রধানমন্ত্রী আরো বলেন, পুলিশবাহিনীকে আরো দক্ষ ও আধুনিক করে তোলার জন্য আওয়ামী লীগ সরকার নানামুখী পদক্ষেপ নিয়েছে। আমরা জনগণের স্বার্থে পুলিশবাহিনীর জন্য ব্যয় করি না, আমরা ভাবি এটা সরকারের একটা বিনিয়োগ। এর আগে, অনুষ্ঠানে পুলিশের বিভিন্ন পর্যায়ের ১১৮ জনকে কৃতিত্বপূর্ণ অবদানের জন্য বাংলাদেশ পুলিশ মেডেল-বিপিএম ও প্রেসিডেন্ট পুলিশ মেডেল-পিপিএম ব্যাজ পরিয়ে দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

মন্তব্য দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here